খুশকিকে গুডবাই বলবেন যেভাবে

লাইফস্টাইল ডেস্ক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম।।

শীতকালে মোটামুটি সবাইকেই একটা ঝামেলায় পড়তে হয়, আর তা হলো খুশকি। মূলত এ সময়ে মাথার তালুর ত্বক বেশি শুষ্ক হবার কারণে এই ঝামেলা দেখা দেয়। সারা বছর খুশকি খুব একটা না থাকলেও শীতে এর উপদ্রব বাড়ে। খুশকি নিরাময়ের বিভিন্ন মেডিসিনাল শ্যাম্পু এখন সব জায়গাতেই পাওয়া যায়। আপনি যদি প্রাকৃতিক উপায়ে খুশকি নিরাময় করতে চান, তাহলে দেখে নিতে পারেন এই প্রতিকারগুলো।

অ্যাসপিরিন

বিভিন্ন ড্যানড্রাফ শ্যাম্পুতে অ্যাকটিভ ইনগ্রেডিয়েন্ট হিসেবে থাকে স্যালিসাইলিক অ্যাসিড। এই একই উপাদান অ্যাসপিরিনেও থাকে। অ্যাসপিরিন গুঁড়ো করে আপনার নিত্য ব্যবহারের শ্যাম্পুর সাথে মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন। এই মিশ্রণ ১-২ মিনিট মাথায় রেখে ধুয়ে ফেলতে হবে। এরপর আবার শুধু শ্যাম্পু দিয়ে মাথা ধুয়ে ফেলতে হবে।

তেল

–   একটি গবেষণায় দেখা যায় ৫ শতাংশ টি ট্রি অয়েল আছে এমন শ্যাম্পু ব্যবহারে খুশকি কমে যায়। আপনিও নিজের ব্যবহারের শ্যাম্পুতে টি ট্রি অয়েল মিশিয়ে নিতে পারেন।

–   গোসলের আগে ৩-৫ টেবিল চামচ নারিকেল তেল তালুতে মাসাজ করে নিন। এক ঘন্টা পরে শ্যাম্পু করে নিন। এছাড়াও নারিকেল তেল আছে এমন কোন শ্যাম্পু ব্যবহার করতে পারেন।

–   সারা রাত মাথায় অলিভ অয়েল দিয়ে রাখলে খুশকির উপশম হতে পারে বলে জানা যায়। মোটামুটি ১০ ফোঁটা অলিভ অয়েল মাথার তালুতে মেখে মাথা ঢেকে রাখুন। সকালে শ্যাম্পু করে নিন।

বেকিং সোডা

মাথা ভিজিয়ে এক মুঠো বেকিং সোডা মাথার তালুতে ভালো করে ঘষে নিন। এরপর ধুয়ে ফেলুন। বেকিং সোডা খুশকি তৈরি করা ফাঙ্গাস থেকে মুক্তি দেয়। চুল কিছুটা শুকনো লাগতে পারে। কিন্তু কিছুদিন পর আপনার ত্বকের স্বাভাবিক তেল ফিরে আসবে।

অ্যাপল সাইডার ভিনেগার

অ্যাপল সাইডার ভিনেগারের অ্যাসিডিটি আমাদের মাথার তালুর পিএইচ পরিবর্তন করে ফেলে। এতে ইস্ট জন্মাতে পারে না। সিকি কাপ অ্যাপল সাইডার ভিনেগারের সাথে সিকি কাপ পানি একটা স্প্রে বোতলে মিশিয়ে নিন এবং তালুতে স্প্রে করে নিন। মাথায় তোয়ালে পেঁচিয়ে রাখুন ১৫ মিনিট থেকে এক ঘন্টা পর্যন্ত। এরপর মাথা ধুয়ে নিন। এটা সপ্তাহে দুই দিন করুন।

মাউথওয়াশ

খুশকি বেশি উপদ্রব করলে সাধারণ শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এরপর অ্যালকোহল বা স্পিরিট বেসড মাউথওয়াশ দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। এর অ্যান্টি-ফাঙ্গাল বৈশিষ্ট্য খুশকি কমাতে সাহায্য করে।

লেবু

লেবু যে খুশকি কমায় এটা এই দেশের অনেকেই জানে। ২ টেবিল চামচ লেবুর রস তালুতে মাসাজ করে নিন। এরপর ধুয়ে ফেলুন। এরপর ১ চা চামচ লেবুর রস এক কাপ পানিতে মিশিয়ে তা দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। এটা প্রতিদিন করুন। খুশকি চলে যাবে।

অ্যালোভেরা

খুশকি হলে সবাই প্রচন্ড মাথা চুলকে থাকেন। এমনকি কেউ কেউ মাথার ত্বক ছিলে ফেলেন। এই সমস্যা কমাতে অ্যালোভেরা কাজে আসতে পারে। শ্যাম্পু করার আগে অ্যালো ভেরা মাথার ত্বকে মাসাজ করে নিন। এটা চুলকানি কমাবে।

এছাড়াও আরও যে প্রাকৃতিক উপাদানগুলো খুশকি কমাতে পারে সেগুলোর মধ্যে রয়েছে মেথি, নিম, সাদা ভিনেগার, রসুন প্রভৃতি। সূত্র: প্রিয়।

Share.

Leave A Reply