নামাজ শেষে মারা গেলেন রশিদ সরদার

নিউজ ডেস্ক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম:

রশিদ সরদার সম্পূর্ণ সুস্থ অবস্থায় মাগরিবের নামাজ পড়তে মসজিদে এসেছিলেন। নামাজের আগে মসজিদে আসা তাবলিগের মানুষসহ অন্যদের সঙ্গে চিল্লা দেয়ার বিষয়ে আলোচনা করেন।

মাগরিবের আজানের পর নামাজে দাঁড়ান। জামাতে ফরজ নামাজ পড়া শেষে সালাম ফেরানোর সঙ্গে সঙ্গে সেখানে শুয়ে পড়েন। এ অবস্থা দেখে ইমামসহ সব মুসল্লি তাকে তুলে ধরে দোয়া দরুদ পড়তে থাকেন। কিন্তু মসজিদের ভেতরেই খুব অল্প সময়ের মধ্যে তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

শরিয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার ছয়গাঁও ইউনিয়নের রশিদ সরদার (৪২) মাগরিবের নামাজ পড়ার সময় মনুয়া বাইতুল আমান মসজিদের ভেতরে মারা যান। আজ মঙ্গলবার বাদ জোহর তার জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

ইমাম ও স্থানীয়রা জানান, রশিদ সরদার সম্পূর্ণ সুস্থ অবস্থায় মাগরিবের নামাজ পড়তে মসজিদে আসেন। নামাজের আগে তিনি তাবলিগ-জামায়াতের লোকসহ ইমাম ও অন্যদের সঙ্গে চিল্লা দেয়ার বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। আলোচনায় তিনি সিদ্ধান্ত নেন মসজিদে অবস্থানরত তাবলিগ জামায়াতের সঙ্গেই এক চিল্লায় যাবেন।

কিন্তু তার আর চিল্লায় যাওয়া হলো না। মাগরিবের ফরজ নামাজের সঙ্গে সঙ্গে সেখানে শুয়ে পড়েন। সবাই তাকে তুলে ধরে দোয়া পড়তে থাকেন। কিছু সময়ের মধ্যে তিনি মসজিদেই মারা যান। তার এ মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তিনি মনুয়া গ্রামের মৃত মোহাম্মদ সরদারের ছেলে।

তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে মসজিদ কমিটির সভাপতি মো. করম আলী সৈয়াল বলেন, আব্দুর রশিদ সরদারের এই হঠাৎ মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত। আল্লাহর কাছে দোয়া করি তিনি যেন তাকে বেহেশত নসিব করেন। সূত্র: বাংলামেইল।

Share.

Leave A Reply