দেবতা হনুমানকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ!

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম:

২০১২ সালে ভারতে ‘ওহ মাই গড’ নামে একটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছিল। সিনেমাটি ছিল ব্যাঙ্গাত্বক। কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করা পরেশ রাওয়াল হিন্দুদের দেবতা ও মুসলমানদের খোদার বিরুদ্ধে ক্ষতিপূরণ দিতে আদালতে মামলা করেছিলেন। মামলায় মন্দির ও মসজিদের প্রধানদের আদালতে উপস্থিত হওয়ার জন্য নির্দেশ জারি করা হয়েছিল। এটা সিনেমার কাহিনী। কাল্পনিক। বাস্তবেও যে এ ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে, তা হয়ত অনেকেই ভাবতে পারেননি। তবে বাস্তবেও এমন ঘটনা ঘটল। বিহারের একটি আদালত হিন্দুদের দেবতা হনুমানকে আদালতে উপস্থিত হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন!

রাজ্যের রোহতাস জেলার সড়কের পাশের একটি হনুমান মন্দিরের দেবতা হনুমানকে আদালতে উপস্থিত হওয়ার আদেশ জারি করা হয়েছে। তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন জেলার সরকারি আইনজীবী।

রোহতাস জেলার উপ-বিভাগীয় বিচারক অনুপ্রবেশের অভিযোগে গণপূর্ত অধিদফতরের দায়ের করা মামলার শুনানিতে এই বানর দেবতাকে উপস্থিত হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। জেলার দেহরি-অন-সন এলাকার ওই মন্দিরের মূর্তির গায়ে আদালতের আদেশটি টানিয়ে দিয়েছেন জেলা কর্মকর্তারা।

গণপূর্ত অধিদফতর অভিযোগে, যানচলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি করায় ‘পঞ্চমুখী’ মন্দির অপসারণে আদালতের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

বজরং দলের কর্মী ও স্থানীয় বিজেপি কর্মীরা আদালতের এ নোটিশের বিরোধিতা করে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন।

এর আগে ১ ফেব্রুয়ারি বিহারের সিতামারহি জেলায় হিন্দু দেবতা রাম ও তার ভাই লক্ষ্মণের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। তবে আদালত মামলাটি গ্রহণ করেননি। সূত্র: এনডিটিভি।

Share.

Leave A Reply