‘সুন্দরবন মুনাফাখোরদের হাতে খুন হতে চলেছে’

নিউজ ডেস্ক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম:

তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেছেন, যে সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্য সারা দেশের ভারসাম্য রক্ষা করছে সেই সুন্দরবন এখন বাংলাদেশ ও ভারতের মুনাফাখোরদের হাতে খুন হতে চলেছে। যে সরকারের হাত-পা বাঁধা থাকে বাংলাদেশ ও ভারতের মুনাফাখোরদের হাতে, সেই সরকারের হাতে দেশ কীভাবে অরক্ষিত হয়? সুন্দরবন কীভাবে অরক্ষিত হয়? তারই নমুনা আমরা বিভিন্নভাবে দেখতে পাচ্ছি।

১০ মার্চ ২০১৬ বৃহস্পতিবার দুপুরে অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্প বাতিলের দাবিতে সুন্দরবন অভিমুখী ‘জনযাত্রা’র মানিকগঞ্জের সমাবেশে বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন।

কমিটির এ নেতা বলেন, ‘আমার বিদ্যুৎকেন্দ্র চাই, সেটি সুন্দরবন ও জীববৈচিত্র্য ধ্বংস করে নয়। আমাদের দেশেই অনেক নিরাপদ জায়গা রয়েছে। সেখানে বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করা হলে জনসাধারণ, পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্যের কোনো ক্ষতি হবে না।’

তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির মানিকগঞ্জ জেলা শাখার আহ্বায়ক মিজানুর রহমানের সভাপতি‌ত্বে সমাবেশে অন্যদের মধ্যে প্রকৌশলী বিডি রহমত উল্লাহ, জোনায়েত সাকিসহ অন্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে দুপুর আড়াইটার দিকে জনযাত্রার গাড়ি বহর মানিকগঞ্জে আসে। এরপর বিজয় মেলা মাঠের পাশে শহীদ স্মৃতিস্তম্ভের সামনে সমাবেশ করে তারা। সমাবেশ শেষে তারা মানিকগঞ্জ শহরে মিছিল বের করে। মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে এবং পরে মধ্যাহ্নভোজ শেষে ফরিদপুরের উদ্দেশে রওনা হয়।

সকাল পৌনে ১১টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক সমাবেশ শেষে এ জনযাত্রা শুরু হয়। তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক প্রকৌশলী শেখ মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ, সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদের নেতৃত্বে জনযাত্রায় বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক-রাজনৈতিক সংগঠনের নেতারা এবং ছাত্র-শিক্ষক ও পরিবেশবিদরা অংশ নিচ্ছেন।

জনযাত্রাটি প্রথমে ঢাকা থেকে সাভার ও মানিকগঞ্জ হয়ে ফরিদপুর যাবে। সেখানে রাত্রিযাপন শেষে পরের দিন যশোর হয়ে খুলনার উদ্দেশে রওনা দেবে। কার্টিসি: এনটিভি।

Share.

Leave A Reply