৯ চৈত্র, ১৪২৩|২৩ জমাদিউস-সানি, ১৪৩৮|২৩ মার্চ, ২০১৭|বৃহস্পতিবার, দুপুর ১২:১৮

বৈশাখের শুরুতে বৃষ্টির আভাস

নিউজ ডেস্ক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম:

চৈত্রের শেষে এসে টানা কয়েকদিনের তীব্র আর মাঝারি তাপদাহে অতিষ্ঠ নগরজীবন। তবে স্বস্তির আভাস মিলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে; বৈশাখের শুরুতে হতে পারে বৃষ্টি।

ইংরেজি ১১ এপ্রিল ২০১৬, বাংলা ২৮ চৈত্র ১৪২২ সোমবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল চুয়াডাঙ্গায় ৪০ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ সময় ঢাকায় সর্বেচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয় ৩৬ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বর্তমানে পাবনা, যশোর ও কুষ্টিয়া অঞ্চলের উপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে তীব্র তাপ্রবাহ। ঢাকা, রংপুর, রাজশাহী বিভাগে চলছে মৃদু থেকে মাঝারি তাপপ্রবাহ।

পরবর্তী পাঁচ দিনের পূর্বাভাসে অধিদপ্তর বলেছে, “এ সময়ের প্রথম দিকে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।”

চলতি মৌসুমের প্রথম তাপপ্রবাহ শুরু হয় শুক্রবার থেকে। পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টায়ও এ তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে।

সোমবার আবহাওয়া অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পাবনা, যশোর ও কুষ্টিয়া অঞ্চলের উপর দিয়ে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। ঢাকা ও রংপুর বিভাগ এবং রাজশাহী, বগুড়া, খুলনা ও সাতক্ষীরা অঞ্চলে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে।

সিলেট বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ী দমকাসহ বৃষ্টি ও বজ্র বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র আকাশ আংশিক মেঘলাসহ আবহাওয়া প্রধানত শুকনো থাকবে।

“বিরাজমান তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে। সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে।”

এপ্রিলের দীর্ঘমেয়াদি পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, এ মাসে দেশের উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে একটি তীব্র তাপপ্রবাহ (৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি) এবং অন্যত্র এক থেকে দুটি মৃদু (৩৬ থেকে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস) বা মাঝারি (৩৮ এর চেয়ে বেশি ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস) তাপপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে।

Share.

Leave A Reply