ঝকঝকে দাঁতে সুন্দর হাসি

ড. মাসুমা চৌধুরী শীতল, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম:

সুন্দর হাসির জন্য চাই সুস্থ দাঁত। আর দাঁত সুস্থ রাখতে হলে নিয়মিত দাঁতের যত্ন নেওয়া চাই। যত্ন নিলে দাঁত সুস্থ তো থাকবেই, সুন্দরও দেখাবে।

  • প্রতিদিন সকালে নাশতার পর ও রাতে ঘুমানোর আগে দাঁত ব্রাশ করা উচিত। ঘুমানোর আগে দাঁত ব্রাশ করাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ, কারণ ঘুমের সময় লালা নিঃসরণ কম হয় বলে জীবাণু সংক্রমণের হার বেশি।
  • দুই-তিন মিনিটের বেশি সময় ধরে দাঁত ব্রাশ করবেন না।
  • দাঁতের যেসব অংশে ব্রাশ পৌঁছায় না, বিশেষ করে পেছনে, সেসব অংশ পরিষ্কার করার জন্য ডেন্টাল ফ্লস ব্যবহার করতে পারেন। এটি ব্যবহারে দাঁতের মাঝের ফাঁকা অংশগুলো ভালোভাবে পরিষ্কার করতে পারবেন।
  • সঠিক পদ্ধতিতে দাঁত ব্রাশ করাটা জরুরি। দন্তবিশেষজ্ঞের কাছে গিয়ে ছবিসহ দাঁত ব্রাশ করার সঠিক পদ্ধতি শিখে আসতে পারেন।
  • বছরে অন্তত একবার দন্তবিশেষজ্ঞের কাছে গিয়ে দাঁত পরীক্ষা করান। প্রয়োজনে তিনি আপনাকে স্কেলিং করিয়ে দেবেন, এর ফলে আপনার দাঁত পাথরমুক্ত ও সুস্থ থাকবে।
  • মিষ্টি ও মিষ্টিজাতীয় খাবার, চকলেট, চুইংগাম, কেক ও ফাস্টফুড জাতীয় খাবার খাওয়ার পরে অবশ্যই পরিষ্কার পানি দিয়ে কুলকুচি করবেন।

কেমন হবে টুথব্রাশ?

  • টুথব্রাশটি নমনীয় (ফ্লেক্সিবল) হওয়া উচিত।
  • টুথব্রাশের ব্রিসলগুলো আঁকাবাঁকা করে সাজানো থাকলে ভালো হয়।
  • খুব বেশি শক্ত বা খুব বেশি নরম ব্রিসলের টুথব্রাশ ব্যবহার করবেন না।
  • প্রতি তিন মাস পরপর টুথব্রাশ অবশ্যই পরিবর্তন করবেন।

টুথপেস্টের রকমফের

১৮ বছরের বেশি বয়সীদের জন্য একটানা দীর্ঘদিন ফ্লোরাইডযুক্ত টুথপেস্ট ব্যবহার করা উচিত নয়; কারণ এতে দাঁতে সাদা দাগ পড়ে যেতে পারে, এমনকি দাঁতের কোনো কোনো অংশ গুঁড়া হয়ে ভেঙেও যেতে পারে। তাই এক মাসে ফ্লোরাইডযুক্ত টুথপেস্ট ব্যবহার করলে পরের মাসে একটি জেলজাতীয় টুথপেস্ট ব্যবহার করা উচিত।

মাউথওয়াশের ব্যবহার

  • মাউথওয়াশ মুখকে জীবাণুমুক্ত রাখতে সাহায্য করে, দীর্ঘ সময় দাঁত ব্রাশ করতে না পারলে মাউথওয়াশের ব্যবহার আপনার নিঃশ্বাসে আনবে সজীবতা।
  • তবে দীর্ঘদিন একটানা মাউথওয়াশ ব্যবহার না করাই ভালো, কারণ কিছু মাউথওয়াশ দীর্ঘদিন ব্যবহারের ফলে দাঁতে স্থায়ীভাবে দাগ পড়ে যেতে পারে। একটানা সাত দিন যদি মাউথওয়াশ ব্যবহার করেন, তাহলে পরের পাঁচ-সাত দিন আবার মাউথওয়াশ ব্যবহার করবেন না। পরবর্তী সাত দিন আবার মাউথওয়াশ ব্যবহার করতে পারেন।
Share.

Leave A Reply