জুতোর যত্নে

লাইফস্টাইল ডেস্ক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম:

পোশাকের পাশাপাশি জুতো ব্যবহারেও আমরা হয়ে উঠেছি ভীষণ শৌখিন। কিন্তু পোশাক যেমন নিয়মিত পরিষ্কার করা হয়, জুতো তেমন ঘন ঘন পরিষ্কার করা যায় না। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই জুতো পরিষ্কার করার নিয়মটাও আমরা জানি না। ফলে জুতো পরিষ্কার করতে গিয়ে বরং এর অবস্থা আরও খারাপ হয়ে যায়।

বিউটি এক্সপার্ট নাহিদ আফরোজ তানি দ্য ঢাকা রিপোর্টকে বলেন, অনেকেই বাইরে থেকে এসে জুতোটি অবহেলায় ফেলে রাখেন। এটা একদমই ঠিক নয়। অন্তত জুতোর ব্রাশ বা একটা শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে ফেলুন। এরপর জুতোদানিতে গুছিয়ে রাখুন। এতে জুতোও ভালো থাকবে, ঘরও পরিচ্ছন্ন দেখাবে।

জুতো কখনো গাদাগাদি করে রাখবেন না। প্রত্যেকটি জুতো আলাদা আলাদা রাখুন। গাদাগাদি করে রাখলে আর্দ্রতায় তা নষ্ট হতে পারে।

এবার জেনে নিন বিভিন্ন রকমের জুতো পরিষ্কারের কিছু টিপস:

০১. চামড়ার জুতো

সমপরিমাণ পানি এবং ভিনেগারের মিশ্রণ মাখিয়ে নিন দাগের ওপর। জুতো শুকিয়ে গেলে নরম একটি কাপড় দিয়ে মুছে ফেলুন। জুতোয় ঘষার দাগ পড়লে একটি ভেজা কাপড়ে বেকিং সোডা লাগিয়ে মুছে নিন। জুতো শুকিয়ে গেলে আরেকবার এভাবে মুছে নিন।

০২. প্যাটেন্ট লেদার জুতো

এগুলো হলো সেসব লেদার জুতো যেগুলো একটু বেশি চকচকে। এগুলোর দাগের ওপর কটন বাড়ে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগিয়ে ঘষে নিন। জুতোর চকচকে ভাব ফিরিয়ে আনতে বেবি অয়েলও ব্যবহার করতে পারেন।

০৩. সুয়েড জুতো

নখ ঘষার ব্রাশ দিয়ে একদিকে ঘষে যত্ন করে দাগ দূর করে ফেলুন। ওপরের ময়লা উঠে গেলে ভেতরের ময়লা দূর করার জন্যও একই পদ্ধতি ব্যবহার করতে পারেন। জেদি দাগের জন্য ভিনেগার বা রাবিং অ্যালকোহল দিয়ে মুছে নিতে পারেন।

 ০৪. ক্যানভাসের জুতো

প্রথম একটি পরিষ্কার ও শুকনো টুথব্রাশ দিয়ে ঘষে ময়লা উঠিয়ে ফেলুন। এরপর বেকিং সোডা এবং পানি দিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। সেই পেস্ট টুথব্রাশ দিয়ে ঘষে লাগান দাগের ওপর। এরপর ওয়াশিং মেশিন বা হাতে ধুয়ে ফেলুন জুতো। বাতাসে শুকিয়ে নিন। রোদ বা ড্রায়ার ব্যবহার করবেন না, জুতো কুঁচকে যেতে পারে।

০৫. রানিং শু

ওপরে লেগে থাকা শুকনো ময়লা টুথব্রাশ দিয়ে উঠিয়ে ফেলুন। এরপর ব্রাশ পরিষ্কার করে নিন। এক কাপ পানিতে এক চা চামচ কাপড় ধোয়ার সাবান মিশিয়ে নিন। এরপর এটা ব্রাশ দিয়ে ঘষে লাগান ফেব্রিক, রাবার এবং জালের জায়গাগুলোতে কিন্তু ফোম বা লেদারের অংশে লাগাবেন না। এরপর একটা ভেজা স্পঞ্জ দিয়ে ওই জায়গাগুলো মুছে নিন। জুতোর লেস আলাদা করে ধুয়ে নিন। শুকিয়ে তারপরে লেস আবার লাগিয়ে নিন জুতোয়।

০৬. সাদা স্নিকার

একটা কটন বলে অল্প করে নেইল পলিশ রিমুভার অথবা ভিনেগার লাগিয়ে নিন। এটা দিয়ে ঘষে দাগ উঠিয়ে ফেলুন। ব্লিচ ব্যবহার করতে চাইলে খুব অল্প পরিমাণে ব্যবহার করুন, নয়তো জুতোর রং হলদেটে হয়ে যেতে পারে। এক ভাগ ব্লিচের সাথে পাঁচ ভাগ পানি দিতে পারেন। ব্লিচ ব্যবহারের পর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

Share.

Leave A Reply