৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৪|২ রবিউল-আউয়াল, ১৪৩৯|২২ নভেম্বর, ২০১৭|বুধবার, রাত ১:৩৩

শুভ জন্মদিন চন্দ্রা আফসার ববি

নিজস্ব প্রতিবেদক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম: টিভিপর্দার এক সময়ের জনপ্রিয় মুখ চন্দ্রা আফসার ববি। এনটিভি, সিএসবি ও দিগন্ত টেলিভিশন খ্যাত এ দাপুটে নিউজ প্রেজেন্টারের জন্মদিন ১০ নভেম্বর। এই দিনে তিনি চট্টগ্রামের হালিশহরে জন্মগ্রহণ করেন। শুভ জন্মদিন চন্দ্রা আফসার ববি। তবে বাবার চাকরির সুবাদে অল্পদিনের মধ্যেই ঢাকায় চলে আসেন।

ঢাকার ধানমন্ডির বাসায় বেড়ে উঠেন ববি। বাবা অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা। মা গৃহিনী। রাজধানীর বাংলাদেশ রাইফেলস স্কুল অ্যান্ড কলেজ (বর্তমানে মুন্সী আবদুর রউফ স্কুল অ্যান্ড কলেজ) থেকে এসএসসি ও এইচএসসি সম্পন্ন করেন। এরপর ইডেন কলেজ থেকে ম্যানেজমেন্টে অনার্স ও মাস্টার্স শেষ করেন।

১৯৯৫ সালে বিটিভিতে গান করার মাধ্যমে প্রথম মিডিয়ায় পা রাখেন চন্দ্রা আফসার ববি। ২০০৩ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত কাজ করেছেন অন্যদিন, অঞ্জন, কে ক্রাফটসের নিয়মিত মডেল হিসেবে। এছাড়া কাজ করেছেন মিল্লাত গ্রুপের ব্র্যান্ড মডেল হিসেবে।

প্রথম আলোর মঙ্গলবারের সাময়িকী নকশার কল্যাণে তার সঙ্গে পাঠকের পরিচয় দীর্ঘদিনের। মঞ্চে এবং টিভিপর্দায় অনেক নাটক করেছেন তিনি। টেলিভিশনে তার প্রথম নাটক ১৩ পর্বের ‘বিভ্রাট’। একুশে টিভিতে প্রচারিত হয় নাটকটি। এছাড়া বিভিন্ন নাটক ও বিজ্ঞাপনের জিঙ্গেলেও কাজ করেছেন তিনি।

চন্দ্রা আফসার ববির টেলিভিশন সাংবাদিকতা শুরু ২০০৫ সালে। ওই বছর তিনি এনটিভিতে নিউজ প্রেজেন্টার হিসেবে যোগ দেন। মূলত এ সময় থেকেই বাইরের মডেলিং থেকে নিজেকে গুটিয়ে নেন তিনি।

২০০৬ সালের শেষদিকে অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রডিউসার হিসেবে যোগ দেন সিএসবি নিউজে। এর পাশাপাশি তিনি সেখানে নিউজ প্রেজেন্টার হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। সিএসবি বন্ধ হওয়ার পর ২০০৮ সালের ১ জানুয়ারি যোগ দেন দিগন্ত টেলিভিশনে। সেখানে তিনি নিউজ প্রেজেন্টেশন ট্রেইনার কাম সিনিয়র নিউজরুম এডিটর হিসেবে যোগ দেন। শারীরিক অসুস্থতার কারণে ২০০৯ সালের মাঝামাঝি সময়ে তিনি দিগন্ত ত্যাগ করেন।

চন্দ্রা আফসার ববি দ্য ঢাকা রিপোর্টকে জানান, তার প্রিয় লাল ও ম্যাজেন্টা। সহাস্যে জানালেন তার প্রিয় খাবার ম্যাকডোনাল্ডের চিকেন চিজ বার্গার, ফ্রাইড চিকেন ও কফি। প্রিয় ফল পাকা মিষ্টি আম। পছন্দের পোশাক শাড়ি। প্রিয় লেখক সমরেশ মজুমদার, শীর্ষেন্দু মুখ্যোপাধ্যায়, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। প্রিয় ঋতু শীত ও বসন্ত। শপিং, বাইরে খাওয়া এবং আড্ডা দিতে ভীষণ পছন্দ তার। বেড়াতে প্রচণ্ড ভালোবাসেন। বিশেষ করে সমুদ্র তাকে খুব টানে। অবসরে গান শুনে, টিভি দেখে এবং গেম খেলে সময় কাটে তার।

জন্মদিনের পরিকল্পনা সম্পর্কে জানতে চাইলে চন্দ্রা আফসার ববি দ্য ঢাকা রিপোর্টকে বলেন, জন্মদিনটা পরিবারের সঙ্গেই কাটানোর চেষ্টা করবো। সন্ধ্যার পর স্বামী-সন্তানকে নিয়ে একসঙ্গে বাইরে খেতে যাবো। ব্যক্তিগত জীবনে চন্দ্রা আফসার ববি বিবাহিতা এবং দুই পুত্র সন্তানের জননী। স্বামী মো. নূরুল আফসার সুমন একটি বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেন। তিনি প্রাণান্ত চৌধুরী আকাশ ছদ্মনামে লেখালেখি করেন। বাজারে তার লেখা একাধিক কবিতার বই রয়েছে।

চন্দ্রা আফসার ববি’র বড় ছেলে অর্ক আফসার রাজধানীর একটু ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে তৃতীয় শ্রেণীতে অধ্যয়নরত। কনিষ্ঠ ছেলে অর্ঘ্য আফসারের বয়স দেড় বছর।

বিভাগ:জন্মদিন
Share.

Leave A Reply