৩০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫|৬ রবিউস-সানি, ১৪৪০|১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮|শুক্রবার, সন্ধ্যা ৭:২৮

ফার্নিচারে ঝোঁক ক্রেতাদের

নিউজ ডেস্ক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম:

ঘর সাজাতে পছন্দের ফার্নিচার খুঁজতে বাণিজ্য মেলায় আসবাব প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলোতে ঢুঁ মারছেন দর্শনার্থীরা। আর প্রতিষ্ঠানগুলো আভিজাত্যকে প্রাধান্য দিয়ে নতুন ডিজাইন ও গুণমানের নানা আসবাব নিয়ে এসেছে। দিচ্ছে বিশেষ মূল্যছাড়। এছাড়া মেলা উপলক্ষে ফ্রি হোম ডেলিভারির অফার দিচ্ছে প্রায় সব প্রতিষ্ঠান।

শনিবার মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা গেছে, এবার বাণিজ্য মেলায় নতুন ডিজাইনের পণ্যের পসরা সাজিয়েছে প্রায় সব ব্র্যান্ডের আসবাব প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান। এর মধ্যে অন্যতম ও সচেতন মানুষের প্রিয় ব্র্যান্ড পারটেক্স ফার্নিচার। এছাড়া আকতার, হাতিল, নাভানা, নাদিয়া, রিগ্যাল ও ব্রাদার্সসহ আসবাব খাতের নামিদামি সব প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে।

দেখা গেছে, সব প্রতিষ্ঠানই ডাইনিং, বেডরুম সেট ও সোফাসহ প্রয়োজনীয় আসবাবে এনেছে নতুনত্ব। চেষ্টা করেছে হাল সময় চিন্তা করে দৃষ্টিনন্দন আসবাব নিয়ে আসতে।

মেলায় পারটেক্স ফার্নিচার বিভিন্ন ডিজাইনের আসবাব নিয়ে এসেছে। রয়েছে বেডরুম সেট, ডাইনিং ও সোফা। রেডরুমে সেটে থাকছে আলমারি, খাট ও ড্রেসিং টেবিল। আর ক্রেতাদের জন্য দিচ্ছে ১৮ শতাংশ ছাড়। তুলমানূলকভাবে অন্যদের থেকে এই ছাড়ের পরিমাণ বেশি। ফলে ক্রেতারাও এই সুযোগে পছন্দের জিনিসটি কিনে নিয়ে যাচ্ছেন।

কথা হয় পারটেক্স প্যাভিলিয়নের ইনচার্জ সুজিত চক্রবর্তীর সঙ্গে। তিনি বলেন, “পারটেক্স ফার্নিচার জগতে সচেতন মানুষের পছন্দের ব্র্যান্ড। আমরাও চেষ্টা করি গ্রাহকের পছন্দ ও চাহিদাকে গুরুত্ব দিতে। সেভাবে আমরা নতুন নতুন পণ্য নিয়ে হাজির হতে চেষ্টা করি। মেলাতেও আমরা নতুন বেশ কিছু পণ্য নিয়ে এসেছি আমাদের ক্রেতাদের জন্য। মেলাতে পারটেক্স ফার্নিচারে সর্বোচ্চ ১৮ শতাংশ ছাড় দেয়া হয়েছে।”

পণ্যের মান সম্পর্কে বলেন, ‘‘আমরা শতভাগ গুণমানের পণ্য তৈরি করি। এর নকশাও দৃষ্টিনন্দন। ডিজাইন করা হয়েছে মালয়েশিয়ান ডিজাইনার দিয়ে। কাঠও সর্বোৎকৃষ্টমানের। ফলে পোকা আমাদের আসবাব ক্ষতি করতে পারবে না।”

পারটেক্স ফার্নিচার মেলার বাইরে তাদের সারা দেশের বিক্রয় কেন্দ্রগুলোতেও ছাড় দিচ্ছে বলে জানান তিনি।

হাতিল কমপ্লেক্স মেলা উপলক্ষে আকর্ষণীয় নকশার আসবাবপত্র নিয়ে এসেছে। এখানে ছাড় দেয়া হয়েছে ৫ থেকে ৮ শতাংশ।

প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের প্রতিষ্ঠান রিগ্যাল ফার্নিচার মেলায় নতুন নকশার খাট, সোফা, ডাইনিং টেবিল ও ওয়ারড্রোব নিয়ে এসেছে। মেলায় বিভিন্ন হারে মূল্যছাড় দিচ্ছে এ প্রতিষ্ঠানটি।

এক সময় স্থানীয় কাঠমিস্ত্রি দিয়ে বাসাবাড়ি ও অফিস-আদালতের আসবাবপত্র তৈরি করা হলেও বেশ কয়েক বছর ধরে এ চিত্র পুরোটাই পাল্টে গেছে। দেশে এখন নান্দনিক সব আসবাবপত্র তৈরি হচ্ছে বিশ্বমানের আধুনিক শিল্প-কারখানায়।

দেশের চাহিদা মিটিয়ে রপ্তানিও হচ্ছে এসব আসবাবপত্র। এভাবেই দক্ষ শ্রমিক আর নান্দনিক শিল্পকর্মে ক্ষুদ্র শিল্প থেকে বৃহৎ শিল্পে পরিণত হয়েছে বাংলাদেশের আসবাবপত্র।

মনমাতানো ডিজাইনে পারটেক্স ফার্নিচারের প্যাভিলিয়নে গিয়ে দেখা যায়, এখানে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ব্যাপক ভিড়।

কথা হয় ব্যবসায়ী সুরুজ্জামাননের সঙ্গে। তিনি বলেন, “পারটেক্স আসবাব জগতে আস্থার নাম। তাই প্রয়োজনীয় কিছু আসবাব কিনতে এখানেই আগে এসেছি।”

পারটেক্সের আরেক কর্মকর্তা সুজিত চক্রবর্তী আরো বলেন, “খাট, ওয়ারড্রব, ড্রেসিং টেবিল, সোফা, ডাইনিং টেবিল, চেয়ার থেকে শুরু করে ঘরের প্রায় সব আসবাবপত্র মিলবে পারটেক্সের প্যাভিলিয়নে। সুন্দর ও আকর্ষণীয় ফার্নিচারগুলো তৈরি করা হয়েছে মেহগনি কাঠ ও কানাডার ওক কাঠ দিয়ে।”

আকতার ফার্নিচারের আবুল কামাল আজাদ জানালেন, মেলাতে তারা ১২ শতাংশ ছাড় দিচ্ছেন। আর ক্রেতাদের জন্য নিয়ে এসেছেন নতুন কিছু পণ্য।

হাতিল কমপ্লেক্সের কর্মী শফিকুল ইসলাম জানালেন, ন্যূনতম এক লাখ টাকায় পাওয়া যাবে একটি বেডরুম সেট। এ ছাড়া রয়েছে সোফা, ডাইনিং টেবিল চেস্ট অব ড্রয়ার, দোলনা, আলমারি এবং জার্মানির কিচেন কেবিনেট।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, আসবারের প্যাভিলিয়নগুলোতে অনেকেই যাচ্ছেন। ঘুরে দেখছেন দৃষ্টিনন্দন সব ফার্নিচার।

বিভাগ:বিজনেস
Share.

Leave A Reply