বাণিজ্য মেলায় আকতার ফার্নিচারের লাখ টাকা ক্যাশব্যাক

বিজনেস ডেস্ক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম:

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় লাখ টাকা ক্যাশব্যাক অফার নিয়ে এসেছে আকতার ফার্নিচার। প্রতিষ্ঠানটির স্টল থেকে এক লাখ টাকার ওপর ফার্নিচার কিনে প্রতিদিন ভাগ্যবান তিনজন ক্রেতা পাচ্ছেন লাখ টাকা ক্যাশব্যাক।

বাণিজ্য মেলার ৫১ নম্বর প্রিমিয়াম প্যাভিলিয়নে (পিপি) দায়িত্বরত আকতার ফার্নিচারের এক্সিকিউটিভ (সেলস) মো. হানিফ (জাবেদ) এ তথ্য জানান।

জাবেদ বলেন, আকতার ফার্নিচারের প্যাভিলিয়নে পাওয়া যাচ্ছে বাসাবাড়ি ও অফিসের সবধরনের ফার্নিচার। সম্পূর্ণ কাঠের তৈরি এসব ফার্নিচারের ক্রেতারা পাচ্ছে ১২ শতাংশ মূল্য ছাড়।

তিনি আরও বলেন, সাধারণত যেসব ফার্নিচার চলে না বিক্রেতারা সে ধরনের ফার্নিচারে বেশি ছাড়া দেন। কিন্তু আমরা সব ফার্নিচারে সমান ১২ শতাংশ ছাড় দিচ্ছি।

লাখ টাকা ক্যাশব্যাকের বিষয়ে জাবেদ বলেন, যেসব ক্রেতা এক লাখ টাকার ওপরে ফার্নিচার কিনবেন, তাদের মধ্য থেকে লটারির মাধ্যমে ভাগ্যবান ক্রেতা নির্বাচন করা হবে। প্রতিদিন তিনজন ক্রেতাকে লটারির মাধ্যম এক লাখ টাকা করে ক্যাশব্যাক দেয়া হচ্ছে।

মেলা উপলক্ষে আকাতার ফার্নিচার নিয়ে এসেছে হাসপাতালে ব্যবহারের জন্য সাধারণ বেড, ওটি বেড, টলি, মেডিসিন শোকেজ। বাণিজ্য মেলার মাধ্যমেই এসব পণ্য বাজারজাত শুরু হয়েছে, জানান জাবেদ।

নতুন ধাচের এসব সাধারণ বেড বিক্রি হচ্ছে ১৪ হাজার টাকায়। ওটি বেডের দাম রাখা হচ্ছে ৩৯ হাজার ৯০০ টাকা। আর টলির দাম ধরা হয়েছে ১২ হাজার টাকা।

অফিসে ব্যবহারের জন্য নিয়ে আসা হয়েছে আকর্ষণীয় ডিরেক্টর টেবিল। এ টেবিল কিনতে ক্রেতাদের খরচ করতে হবে ৭৩ হাজার টাকা। আর টেবিলের সঙ্গে চেয়ারসহ সেট কিনতে খরচ হবে দুই লাখ ১০ হাজার টাকা। এসব ফার্নিচার সম্পূর্ণ কাঠের তৈরি।

গ্রাহকের চাহিদা ও পছন্দের ওপর গুরুত্ব দিয়ে বাসা-অফিসের এসব ফার্নিচার তৈরি করা হয়েছে বলে জানান জাবেদ। তিনি বলেন, অফিস ফার্নিচারের মধ্যে বিভিন্ন মডেল ও মানের চেয়ার বিক্রি করা হচ্ছে ৩০০ টাকা থেকে ৬৫ হাজার ৮০০ টাকায়। টেবিল পাওয়া যাবে ৮ হাজার থেকে ৫৭ হাজর টাকায়।

প্যাভিলিয়নটিতে রয়েছে বাসা-বাড়িতে ব্যবহারের সামগ্রীও। এরমধ্যে আছে বিশেষ ধরনের ৬ প্রকারের ম্যাট্রেস। মানভেদে এ ম্যাট্রেসের দাম রাখা হচ্ছে ১১ হাজার টাকা থেকে ৫৪ হাজার টাকা।

এছাড়া বালিশ পাওয়া যাচ্ছে ৪৭৫ টাকা থেকে ৫০০ টাকায়। ১৪০ টাকা থেকে ২৪০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে কুশন। কোল বলিশের দাম রাখা হচ্ছে ৮২৫ টাকা। রয়েছে ৫ প্রকারের ফোম। মানভেদে এসব ফোমের প্রতি কিউবিক ফিটের দাম ৩৫ টাকা থেকে ৭৩০ টাকা।

মেলায় বিক্রয় পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলে আকতার ফার্নিচারের এক্সিকিউটিভ জাবেদ বলেন, মেলায় আমাদের প্যাভিলিয়ন নেয়ার মূল উদ্দেশ্য বিক্রয় নয়, প্রচার। এ উদ্দেশ্যেই মেলার আকর্ষণীয় স্থানে প্যাভিলিয়ন নেয়া হয়েছে।

জাবেদ আরও বলেন, মেলায় প্রচারণা চালানো মূল উদ্দেশ্য হলেও প্রথমদিন থেকেই উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ক্রেতা ও দর্শনার্থী আসছেন। ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের উপস্থিতিতে আমরা সন্তুষ্ট।

বিভাগ:বিজনেস
Share.

Leave A Reply