৬ মাঘ, ১৪২৪|১ জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৩৯|১৯ জানুয়ারি, ২০১৮|শুক্রবার, রাত ১১:৩৯

দাম কমছে ইন্টারনেটের

নিউজ ডেস্ক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম:

গতি বাড়িয়ে ইন্টারনেটের দাম কমাতে করছে সরকার। দাম পুনঃনির্ধারণের ঘোষণা আসতে পারে দু-একদিনের মধ্যেই। সরকারের পক্ষ থেকে নির্দিষ্ট একটি মূল্য থাকবে। গ্রাহক এবং ব্যবসায়ী কোনো পক্ষই যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সে দিকটিকে প্রাধান্য দেয়া হচ্ছে। ১ মার্চ ২০১৭ বুধবার পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশন পরিদর্শন শেষে একথা জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

সারাদেশে অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল সংযোগের মাধ্যমে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দেয়া ও গতি বাড়ানোর জন্য কাজ শেষ পর্যায়ে। তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর তরুণ প্রজন্ম যাতে দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা পায় সেটা নিশ্চিত করা হচ্ছে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, চলতি মাসের মধ্যে দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবলের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর থেকেই দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে ইন্টারনেট সেবা দেয়ার জন্য বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু করা হবে। ফলে ইন্টারনেট ব্যবহারের বিকল্প পথ তৈরি হবে এবং দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ কম মূল্যেই পাবেন ইন্টারনেট সেবা। চলতি সপ্তাহে দেশে এক হাজার ৩০০ জিবিপিএস ইন্টারনেট ব্যান্ডউইডথ যোগ হচ্ছে।

তারানা হালিম জানিয়েছেন, দুর্যোগকালে প্রথম সাবমেরিন ক্যাবলে কোনো সমস্যা হলে দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল থেকে ইন্টারনেট সেবা পাবেন গ্রাহকরা।

জানা গেছে, বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহারের পরিমাণ ৪০০ জিবিপিএসের বেশি। এর মধ্যে ১২০ জিবিপিএস রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেডের (বিএসসিসিএল) মাধ্যমে আসে। বাকি ২৮০ জিবিপিএস আইটিসির ব্যান্ডউইডথ ভারত থেকে আমদানি করা হয়।

চাহিদার অতিরিক্ত মালয়েশিয়া, ভুটান, মিয়ানমার ও ভারতের সেভেন সিস্টার এবং আসাম ব্যান্ডউইডথ নিতে চায় জানিয়ে তারানা হালিম বলেন, দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে আসা অতিরিক্ত ব্যান্ডউইডথ আমরা রফতানি করতে পারবো।

বিএসসিসিএসের সঙ্গে বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন কোম্পানি লিমিটেড (বিটিসিএল) ও টেলিফোন শিল্প সংস্থা (টেসিস) ট্রান্সমিশন লিংকের কাজ শেষ করেছে বলে জানান বিএসসিসিএল ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মনোয়ার হোসেন। দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবলের ব্যান্ডউইডথের নতুন মূল্য নির্ধারণ করায় ইন্টারনেটের দাম আরও কমে আসবে।

নতুন এই সাবমেরিন ক্যাবলের মেয়াদকাল ২০ থেকে ২৫ বছর হবে জানিয়ে মনোয়ার হোসেন বলেন, প্রথম সাবমেরিন ক্যাবলের মেয়াদ আর মাত্র ১০ বছর আছে। সেজন্য দ্বিতীয়টির সঙ্গে যুক্ত হওয়ার সিদ্ধান্ত সময়োপযোগী।

Share.

Leave A Reply