গরমে চাই ডাবের পানি

লাইফস্টাইল ডেস্ক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম: প্রচণ্ড গরম। গনগনে রোদ। এই গরমে তৃষ্ণা মেটাতে কচি ডাবের জুড়ি নেই। পুষ্টিগুণেও পিছিয়ে নেই ডাব। রূপচর্চায়ও ডাবের রয়েছে বিশেষ কদর। এভারগ্রিন অ্যাডামস অ্যান্ড ইভস-এর কর্ণধার বিউটি এক্সপার্ট নাহিদ আফরোজ তানি বলেন, প্রতিদিন ডাবের পানি পান করলে রক্ত পরিষ্কার হয়। আর রক্ত পরিষ্কার থাকলে ত্বকে ব্রণ কিংবা অন্য কোনো সমস্যা দেখা দেয় না। এতে ত্বক হয় উজ্জ্বল।

নাহিদ আফরোজ তানি দ্য ঢাকা রিপোর্টকে বলেন, ডাবের পানি ফেসিয়ালের মাস্ক হিসেবে কাজে দেয়। এটি ত্বক পরিষ্কার করে এবং ত্বকের চামড়া টান টান রাখতে সাহায্য করে। ডাবের পানির সঙ্গে সামান্য লেবুর রস মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করলে ত্বকের বলিরেখা প্রতিরোধে কাজে দেয়। জীবাণু সংক্রমণের কারণে ত্বকে কোনো সমস্যা হলে প্রতিদিন দু-তিনবার ডাবের পানি দিয়ে ধুলে ত্বক ভালো থাকে। রোদে পোড়া ভাব দূর করতে ডাবের পানি খুব উপকারী।

ডাবের পানির সঙ্গে মুলতানি মাটি মিশিয়ে প্রতিদিন ত্বকে ব্যবহার করলে রোদে পোড়া দাগ দূর হয়, ত্বক হয় লাবণ্যময়। যেকোনো বয়সের নারী-পুরুষই ত্বকের যত্নে ডাবের পানি ব্যবহার করতে পারেন।

ডাবের পানিতে পটাশিয়াম, সোডিয়াম এবং ফ্লোরাইড আছে। এসব উপাদান শরীরে পানির সমতা ঠিক রাখে। গরমে যেকোনো ধরনের জুসের চেয়ে ডাবের পানি ভালো। ডাবের পানি প্রচণ্ড গরমেও শরীর ঠান্ডা রাখে। সব ঋতুতে তাই ডাবের পানি পান করা যায়। এমনকি ডায়াবেটিসের রোগীরাও ডাবের পানি পান করতে পারেন। ডাবের শাঁসে আছে সামান্য প্রোটিন। এটি শরীরের জন্য ভালো। খাওয়ার আগে কিংবা পরে যেকোনো সময়ই ডাবের পানি পান করা যায়। তবে ডাবের পানি বাসি হয়ে গেলে না খাওয়াই ভালো। এতে পেটে সমস্যা দেখা দিতে পারে।

Share.

Leave A Reply