৮ মাঘ, ১৪২৪|৩ জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৩৯|২১ জানুয়ারি, ২০১৮|রবিবার, সন্ধ্যা ৬:২৭

নানা জাতের সৌদি খেজুর

লাইফস্টাইল ডেস্ক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম: খেজুর, আরবিতে যাকে বলা হয় তুমুর। সৌদি আরবে রয়েছে নানা জাতের খেজুর। নামও বিভিন্ন। যেমন: আজুয়া, আনবারা, সাগি, সাফাওয়ি, মুসকানি, খালাস, ওয়াসালি, বেরহি, শালাবি, ডেইরি, মাবরুম, ওয়ান্নাহ, সেফরি, সুক্কারি, খুদরি। নানা জাতের খেজুর আকার ও মানভেদে কেজিপ্রতি ১০ থেকে ১৫০ রিয়াল।

মদিনার হাইয়াল মাসনিয়া এলাকায় ‘তুমুর তাইয়াবা’ খেজুরের দোকানের কর্ণধার হামদুল্লাহ মোহাম্মদ জানান, রমজান মাস থেকে খেজুর ওঠে, শাওয়াল মাস পর্যন্ত থাকে। এখনো কিছু খেজুরবাগানে খেজুর পাওয়া যাচ্ছে। খেজুর ফ্রিজে সংরক্ষণ করা শুরু হলে দাম কিছুটা বাড়বে।

মদিনায় খেজুরের বাগান মাজরায় কাজ করেন মো. আনোয়ার। তিনি জানালেন, চারটি পর্যায়ে খেজুর পাকানো হয়। সেগুলো কিমরি (কাঁচা), খলাল (পূর্ণাঙ্গ, ক্রাঞ্চি), রুতাব (পাকা, নরম), তুমুর (পাকা, সূর্যে শুকানো) নামে পরিচিত। গাছে ফল আসার জন্য সচরাচর চার থেকে আট বছর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়। তবে বাণিজ্যিকভাবে ফসল উৎপাদনের উপযোগী খেজুরগাছে ফল আসতে সাত থেকে দশ বছর সময় লেগে যায়। পূর্ণাঙ্গ খেজুরগাছে প্রতি মৌসুমে গড়ে ৮০ থেকে ১২০ কিলোগ্রাম (১৭৬ থেকে ২৬৪ পাউন্ড) ফল পাওয়া যায়।

Saudi Date_The Dhaka Report

দেখতে ও স্বাদে যেমন

আজওয়া: মদিনা শরিফের সর্বোত্তম খেজুর। এটা দেখতে কালো, বিচি ছোট এবং খেতে অত্যন্ত সুস্বাদু।

সাফাওয়ি: এই খেজুর নরম। গাঢ় বাদামি রঙের লম্বাটে। খেতে মোটামুটি মিষ্টি।

আমবার: মদিনার বিখ্যাত খেজুরগুলোর মধ্যে একটি। খেতে কম মিষ্টি।

সুগায়ি: এই খেজুর বড় ও ছোট দুই আকারেই হয়। মুখে দিলে একটু কস লাগে। খেতে মিষ্টি। বাইরের আবরণ নরম।

মরিয়ম: লালচে রঙের এই খেজুর এক থেকে দেড় ইঞ্চি পর্যন্ত লম্বা হয়। কার্টিসি: প্রথম আলো।

Share.

Leave A Reply