সকালের ভারী বর্ষণে পানির নিচে ঢাকা!

নিউজ ডেস্ক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম: সকালটা আজ বৃষ্টি দিয়েই শুরু হয়েছে রাজধানীবাসীর। সকাল সাড়ে ছয়টা থেকেই আকাশ কালো করে মেঘ জমে। এরপর শুরু হয় মুষলধারে বৃষ্টি। প্রায় টানা বর্ষণের রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। এ কারণে সৃষ্টি হয় যানজট। স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থী, অফিসগামী মানুষকে গন্তব্যে যেতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ সোমবার সকাল সোয়া ৯টায় টানা বর্ষণ নিয়ে আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে একটি আপডেট জানানো হয়। এতে বলা হয়, রাজধানী ঢাকায় আজ সকাল ৬টা থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত তিন ঘণ্টায় ৬৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

রাজধানীর কোনো কোনো সড়কে হাঁটু পানি জমে গেছে। রাজধানীর কারওয়ান বাজার, মোহাম্মদপুর, ধানমন্ডি ২৭, সোবহানবাগ, বসুন্ধরা সিটির পেছনে গার্ডেন রোড, পান্থপথ মোড় পার হয়ে গ্রিনরোডের কিছু জায়গা, পশ্চিম তেজতুরী পাড়া, ফকিরাপুর, খিলগাঁও, মতিঝিল, পল্টনসহ বেশির ভাগ এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে।

রাজধানীর গার্ডেন রোডে থাকেন হাসনা জামান। তিনি জানান, সকাল ৭টায় মেয়েকে স্কুলে দিয়ে অফিসে যান তিনি। হঠাৎ বৃষ্টিতে চরম ভোগান্তিতে পড়েন। মেয়ে ও তিনি দুজনের ভিজে যান। বৃষ্টিতে কোনো যানবাহন পাননি। তিনি বলেন, ‘হাঁটু পানি ডিঙিয়ে বাচ্চাকে স্কুলে দিয়েছি।’

তেজতুরী বাজার এলাকার বাসিন্দা সাইফুল জামান। তিনি বলেন, বৃষ্টির জন্য দ্বিগুণ তিনগুণ ভাড়া বেশি চেয়েছে সব রিকশাওয়ালা। ২০ টাকার ভাড়া ৫০ টাকা দিয়ে কারওয়ান বাজারে তাঁর অফিসে পৌঁছান তিনি। তবে এই বৃষ্টিতে যাদের নিজস্ব পরিবহন আছে যানবাহন খোঁজার ঝক্কি পেরোতে হয়নি তাদের। মোহাম্মদপুরের বাসিন্দা অনিরুদ্ধ জানান, নিজের মোটরসাইকেল ছিল। তবে সংসদ ভবনের সামনে অর্ধেক রাস্তা জুড়ে পানি ছিল। মোটরসাইকেলের ইঞ্জিনের কাছ পর্যন্ত পানি উঠে গিয়েছিল।

বৃষ্টি আর জলাবদ্ধতার কারণে যানজটের ভোগান্তিতে পড়তে হয় নগরবাসীকে। আরমান হোসেন বলেন, তিনি মোহাম্মদপুর থেকে কারওয়ান বাজারে অফিসে পৌঁছান প্রায় দেড় ঘণ্টায়। সকাল সাড়ে সাতটায় বাসে উঠে মানিক মিয়া অ্যাভিনিউয়ে পৌঁছাতে প্রায় এক ঘণ্টা সময় লেগে যায় তাঁর।

বৃষ্টিতে কারওয়ান বাজারের কাঁচাবাজার এলাকায় খেটে খাওয়া মানুষের চরম ভোগান্তি দেখা যায়। মাত্র আধঘণ্টা রাস্তায় প্রায় হাঁটু পানি উঠে যায়। সবজিসহ কাঁচা পণ্য নিয়ে বিপাকে পড়ে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা। অনেক জায়গায় পানিতে ভাসতে দেখা যায় সবজি।

আবহাওয়া দপ্তর বলছে, মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকায় ভারী বৃষ্টিপাত হচ্ছে। শুধু রাজধানীতে নয়, সারা দেশেই মৌসুমি বায়ু সক্রিয় রয়েছে। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেটেও ভারী বৃষ্টিপাতের আশঙ্কার কথা বলা হয়েছে।

Share.

Leave A Reply