৩০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৪|২৪ রবিউল-আউয়াল, ১৪৩৯|১৪ ডিসেম্বর, ২০১৭|বৃহস্পতিবার, রাত ১২:৪১

শুভ জন্মদিন সাংবাদিক-গবেষক হাসান মাহামুদ

নিজস্ব প্রতিবেদক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম: দেশের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল রাইজিংবিডি’র (risingbd.com) প্রধান প্রতিবেদক হাসান মাহামুদের জন্মদিন ২২ নভেম্বর। শুভ জন্মদিন হাসান মাহামুদ। তার বাবা ছিলেন চট্টগ্রাম পাটকলের হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা। সেই সূত্রে ১৯৮৪ সালের এই দিনে তিনি চট্টগ্রামের আদমজীতে জন্মগ্রহণ করেন। দাদাবাড়ি ফেনীতে।

হাসান মাহামুদ সাংবাদিকতার পাশাপাশি বিভিন্ন গবেষণা কাজে সম্পৃক্ত রয়েছেন। বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমী (বার্ড), শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমি (নায়েম) এবং পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান গবেষণা পরিষদের অধীনে মোট আটটি সরকারি গবেষণা সম্পন্ন করেছেন। এছাড়া বেসরকারি পর্যায়ের গবেষণা রয়েছে প্রায় ডজনখানেক।

২০০৩ সালে পাঞ্জেরি শিক্ষা সংবাদ দিয়ে হাসান মাহামুদের লেখালেখি শুরু। এরপর প্রদায়ক হিসেবে কাজ করেছেন দৈনিক জনকণ্ঠ, দৈনিক ভোরের কাগজ, দৈনিক যায় যায় দিন-এর মতো পত্রিকায়। ২০০৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে দৈনিক ভোরের ডাকে নিজস্ব প্রতিবেদক হিসেবে তার মূলধারার সাংবাদিকতা শুরু। এরপর ২০১২ সালের জুলাইয়ে দৈনিক মানবকণ্ঠে নিজস্ব প্রতিবেদক এবং ২০১৩ সালের জুনে দৈনিক বর্তমানে নিজস্ব প্রতিবেদক হিসেবে যোগ দেন। সর্বশেষ ২০১৫ সালের মার্চ থেকে রাইজিংবিডিতে চিফ রিপোর্টার (প্রধান প্রতিবেদক) হিসেবে কর্মরত আছেন।

২০০০ সালে সোনাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি সম্পন্ন করেন। ২০০২ সালে ফেনী সরকারি কলেজের বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এইচএসসি’র পর ঢাকায় চলে আসেন। প্রাইমএশিয়া ইউনিভার্সিটি থেকে বিবিএ এবং স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটি থেকে এমবিএ (এইচআরএম) সম্পন্ন করেন। এছাড়া ২০১৩ সালে সিভিল সার্ভিস কলেজ থেকে গভর্নেন্স অ্যান্ড পাবলিক পলিসি’তে ডিগ্রি অর্জন করেন।

হাসান মাহামুদের বাবা আবুল কালাম আজাদ ভুঁইয়া অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা। মা নুরুন নাহার চৌধুরী গৃহিনী। তিন ভাই-বোনের মধ্যে বড় ভাই তুষার আহমেদ ব্যবসায়ী, ছোট বোন নুসরাত জাহান মৌ ঢাকা সিটি কলেজে অধ্যয়নরত।

সাংবাদিকতার পাশাপাশি লেখালেখি করেন হাসান মাহামুদ। এরইমধ্যে তার তিনটি বই প্রকাশিত হয়েছে। প্রথম বই ‘মেধা মননে নন্দিতরা’ (প্রবন্ধ গ্রন্থ) প্রকাশ হয় ২০১২ সালে। ২০১৫ সালের একুশে বইমেলায় প্রকাশ হয় ‘ভূমিপুত্রের প্রেম’ (উপন্যাস) এবং ‘সরল ভাবনা’ (নিবন্ধ গ্রন্থ)।

নাটক ও চলচ্চিত্রের স্ক্রিপ্ট লেখেন এই সাংবাদিক। ইতোমধ্যে তার লেখা একাধিক সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। এর মধ্যে স্টোরি অব সামারা অন্যতম। বেশ কয়েকটি নাটক বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচারিত হয়েছে। এর মধ্যে প্রেমের ১৪৪ ধারা (ধারাবাহিক), শিউলি মালা, আলাপের খিচুড়ি, একটি অটোগ্রাফ, একটি লাল গোলাপের জন্য প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য।

বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড ও সাংগঠনিক কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত হাসান মাহামুদ। ‘জাতীয় ক্রীড়া দিবস উদযাপন ও বাস্তবায়ন পরিষদ’-এর আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করছেন। এ পরিষদের দাবির মুখে ২৪ জুলাই ‘জাতীয় ক্রীড়া দিবস’ ঘোষণার সুপারিশ করেছে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।

হাসান মাহামুদ দ্য ঢাকা রিপোর্টকে জানান, তার প্রিয় রঙ সবুজ। খেতে ভালবাসেন দেশীয় যেকোনো খাবার। প্রিয় ফল আম। প্রিয় ফুল গোলাপ। পছন্দের পোশাক জিন্স-টি শার্ট ও পায়জামা-পাঞ্জাবী। প্রিয় লেখক শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়, হুমায়ুন আহমেদ, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। প্রিয় ঋতু বর্ষা। বই পড়া তার একটি বড় অভ্যাস। অবসরের বেশিরভাগ সময়ই কাটে বই পড়ে।

গান শুনতে খুব পছন্দ করেন হাসান মাহামুদ। পছন্দের শিল্পী ইজরায়েল কামাকাইভিউ’ওয়েল, জর্জ মাইকেল, হেমন্ত মুখোপাধ্যায়, বাপ্পা মজুমদার। হলিউড মুভির প্রতি দুর্বলতা রয়েছে। পছন্দের অভিনেতা ডেঞ্জেল ওয়াশিংটন, জনি ডেপ, পিয়ার্স বসনান।

ঘুরে বেড়াতে প্রচণ্ড ভালোবাসেন। পেশাগত ও গবেষণার কাজে এরইমধ্যে দেশের প্রায় শখানেক উপজেলা চষে বেড়িয়েছেন। তবে সবচেয়ে পছন্দের স্থান বান্দরবনের নীলাচল ও দাদাবাড়ি ফেনী।

জন্মদিনের পরিকল্পনা সম্পর্কে জানতে চাইলে হাসান মাহামুদ দ্য ঢাকা রিপোর্ট’কে বলেন, এখন সাধারণত রাতেই জন্মদিনের অনুষ্ঠান করা হয়। আগের রাতে প্রথম প্রহরে পরিবারের সাথে উদযাপন হয়। এর পুরো দায়িত্ব ও কৃতিত্ব তুলির। কর্মস্থলেও জন্মদিনের আয়োজন থাকে। আর সন্ধ্যায় বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা।

ব্যক্তিগত জীবনে হাসান মাহামুদ বিবাহিত এবং এক সন্তানের জনক। স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা তুলি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজবিজ্ঞানে মাস্টার্স সম্পন্ন করেছেন। পুত্র ‘মুগ্ধ শাফাফ মাহামুদ’-এর বয়স দেড় বছর।

সবসময় ইতিবাচক মানসিকতা পোষণ করেন এই সাংবাদিক-গবেষক। অল্প বয়সে এতো এতো সাফল্যের পেছনের সূত্র মনে করেন ‘ইতিবাচক থাকা’কে। দেশকে নিয়ে প্রচণ্ড আশাবাদী তিনি। সমৃদ্ধ এবং উন্নত এক দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখেন হাসান মাহামুদ।

বিভাগ:জন্মদিন
Share.

Leave A Reply