৮ মাঘ, ১৪২৪|৩ জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৩৯|২১ জানুয়ারি, ২০১৮|রবিবার, সন্ধ্যা ৬:০৯

শিক্ষা সচিবসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল

নিউজ ডেস্ক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম: শিক্ষা, অর্থ ও জনপ্রশাসন সচিবসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। সারাদেশে কারিগরি স্কুল অ্যান্ড কলেজে শিক্ষক ও পরিদর্শকসহ বিভিন্ন পদে নিয়োগ পাওয়া ২৪১ জনকে রাজস্ব খাতে স্থানান্তর করতে হাইকোর্টের রায় মানেননি তারা। ৯ জানুয়ারি ২০১৭ মঙ্গলবার বিচারপতি আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

কারিগরি স্কুল অ্যান্ড কলেজের ২৪১ জন শিক্ষকের করা রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৭ সালের ১১ জানুয়ারি তাদের চাকরি রাজস্ব খাতে স্থানান্তরের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। কিন্তু তা আজও বাস্তবায়ন হয়নি। এ কারণে সরকারের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার আবেদন করেন সংশ্লিষ্টরা।

‘মেধা উন্নয়ন প্রকল্প’র আওতায় দেশের কারিগরি স্কুল অ্যান্ড কলেজগুলোতে শিক্ষক, পরিদর্শকসহ বিভিন্ন পদে নিয়োগ দেওয়া হয়। ২০০৮ থেকে ২০১৫ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত চলে প্রকল্পটি।

আদালতে নিয়োগপ্রাপ্তদের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট সালাহউদ্দিন দোলন। তাকে সহযোগিতা করেন অ্যাডভোকেট মিজানুর রহমান। তিনি জানান, ওই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে বলা ছিল— প্রকল্প শেষ হলে তাদের চাকরি রাজস্ব খাতে স্থানান্তর করা হবে। কিন্তু তা না করায় দোহারের জয়পাড়া টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের পরিদর্শক মো. শামসুদ্দিনসহ ২৪১ জন ২০১৬ সালে রিট আবেদন করেন।

এরপর আদালত রুল জারি করেন। এর ওপর শুনানি শেষে হাইকোর্ট তাদের চাকরি রাজস্ব খাতে স্থানান্তরের নির্দেশ দেন। কিন্তু তা বাস্তবায়ন না করায় সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার রুল জারি করেছেন আদালত।

জানা গেছে, রিট পিটিশন দায়েরকারী ২৪১ জনসহ তিন শতাধিক শিক্ষক ৩০ মাস ধরে বেতন-ভাতা না পেয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে দুর্বিষহ পরিস্থিতির শিকার হয়েছেন। এই অসহায় অবস্থা থেকে পরিত্রাণের জন্য শিক্ষকরা প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি ও আন্তরিক হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

Share.

Leave A Reply