৬ আশ্বিন, ১৪২৫|১০ মুহাররম, ১৪৪০|২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮|শুক্রবার, দুপুর ২:৩৯

খেয়াল রাখুন মেকআপের আগে

লাইফস্টাইল ডেস্ক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম: কেউ করেন শখে। কেউ করেন দরকারে। কিন্তু কাজটা এমন যে দরকারে পড়ে করলেও মন্দ লাগে না। বিশ্বজুড়েই মেকআপ বিষয়টা এখন নিত্যপ্রয়োজনীয়। নানা ব্র্যান্ড আর নানা উপকরণ, লক্ষ্য একটাই—নিজের ভালো লাগার জন্য সেজে ওঠা। মেকআপের খুঁটিনাটি কিছু নির্দেশনা আছে। একটু বুঝে অনুসরণ করলে মেকআপ চেহারায় টিকে থাকবে অনেকক্ষণ। রইল সে রকমই কিছু পরামর্শ।

অপরিষ্কার চেহারা

মেকআপ করার আগে ত্বক পরিষ্কার করে নেওয়া জরুরি। না হলে ত্বকের ওপর জমে থাকা ময়লা মেকআপকে ত্বকের ওপর থেকে আলাদা করে ফেলে। সহজভাবে বললে, ত্বকের ওপর মেকআপ ভালোভাবে বসতে পারে না। মেকআপ করা যেন অনেকটা ক্যানভাসে রং করার মতোই। ক্যানভাসে ময়লা থাকলে সেখানে ছবি আঁকাই তো বৃথা। এ কারণেই ত্বকের ঘাম ও ময়লা ধুয়ে-মুছে নিন ভালোভাবে। ত্বক তৈলাক্ত হলে টি জোন অবশ্যই ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন।

ময়েশ্চারাইজ

মেকআপ লাগানোর আগে ত্বকে ক্রিম লাগানো আবশ্যক এবং তা অবশ্যই পরিষ্কার ত্বকে। ত্বক খসখসে হয়ে থাকলে মেকআপ না বসার সম্ভাবনাই বেশি। মুখে ও গলায় ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। এতে করে তিনটি কাজ হবে। ত্বক ভেতর থেকে নরম হবে। মসৃণ ত্বকের ওপর মেকআপ ভালোভাবে বসবে। পাশাপাশি ক্রিমের কারণে লোমকূপের ভেতরেও মেকআপ ঢুকবে না। ফলাফল মেকআপ অনেকক্ষণ থাকবে।

ত্বকে হাত লাগাবেন না

মেকআপ করার পর অনেকেই বারবার চেহারায় কোনো না কোনো ছুতোয় হাত দেন। এতে করে হাতের ময়লা ও তেল চেহারায় লেগে যায়। ব্রণ হওয়ার প্রবণতাও বাড়ে। বারবার হাত দেওয়ার কারণে একটু একটু করে মেকআপও কিন্তু উঠে যায়। মেকআপ বেশিক্ষণ রাখতে চাইলে মুখে হাত দেওয়ার অভ্যাস এখনই বদলে ফেলুন।

সৈয়দা নীপা

মেকআপ প্রাইমার

মেকআপ প্রাইমার ব্যবহার ত্বককে মসৃণ করে এবং মেকআপ নেওয়ার জন্য প্রস্তুত করে তোলে। মনে করুন মেকআপের জন্য যে বেজটা আমরা নিই, এটা হলো তার বেজ। প্রাইমার ফাউন্ডেশনটাকে বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারে। যদি আপনি মনে করেন যে আপনার মেকআপ বেশিক্ষণ স্থায়ী হচ্ছে না, তাহলে ভালো মনের প্রাইমার কেনার সময় চলে এসেছে।

পাউডার

চেহারায় ফাউন্ডেশন ধরে রাখার আরেকটি উপায় হলো পাউডার ব্যবহার করা। ট্রান্সলুসেন্ট, কমপ্যাক্ট, টু ওয়ে কেক—যেকোনো লিকুইড মেকআপের স্থায়িত্বের জন্য পাউডার লাগানো প্রয়োজন। বিবি ক্রিম, ফাউন্ডেশন অথবা কনসিলার লাগানোর পর পাউডার লাগান।

সেটিং স্প্রে

সেটিং স্প্রে ইতিমধ্যেই জনপ্রিয়তা পেয়েছে পাশ্চাত্যে। এটি ব্যবহারে মেকআপ ফেটে যায় না, মলিন হয় না, গলে যায় না। বেজ, লিপস্টিক, চোখের মেকআপ অনেকক্ষণ ধরে রাখার জন্য সেটিং স্প্রে ভালো কাজ করে।

লিপ লাইনার

যাঁদের ঠোঁটে লিপস্টিক বেশিক্ষণ থাকে না, তাঁরা লিপ লাইনার ব্যবহার করে দেখতে পারেন। লিপস্টিক লাগানোর আগে একই রঙের লিপ লাইনার পুরো ঠোঁটে লাগিয়ে নেওয়া যায়। ভিন্ন রং আনতে চাইলে অন্য আরেকটি রঙের লিপ লাইনার লাগিয়ে দেখতে পারেন।

লিপ বাম

ফাটা ঠোঁটে লিপস্টিক লাগানোর পরামর্শ কোনো রূপবিশেষজ্ঞের কাছ থেকে এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। লিপস্টিক লাগানোর আগে ঠোঁটকে অবশ্যই ময়েশ্চারাইজ করে নিতে হবে। কিন্তু তাই বলে ঠোঁটে লিপ বাম লাগিয়ে লিপস্টিক লাগাতে যাবেন না। লিপ বামের তেল পিচ্ছিল বেজ তৈরি করে। যে কারণে ঠোঁটের ওপর লিপস্টিকের টিকে থাকা অনেকটাই অসম্ভব হয়ে পড়ে। এ কারণে লিপ বাম লাগানোর পর কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। অথবা লিপ বামের তেলটা টিস্যু দিয়ে তুলে ফেলুন।

পুরোনো ও বেঠিক মেকআপ

মেকআপ অনেকক্ষণ ত্বকে না থাকার আরেকটি কারণ হলো পুরোনো হয়ে যাওয়া। পাশাপাশি মেকআপটি আপনার ত্বক উপযোগী হচ্ছে কি না, সেটাও খেয়াল রাখুন। ত্বক পরিষ্কার করার ফেসওয়াশটাও কিন্তু এই তালিকায় পড়ে। ত্বকের সঙ্গে মানিয়ে মেকআপে প্রতিটি পণ্য ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক। এতে করে ত্বক ও মেকআপ দুটোই খুশি থাকবে।

ভালো ব্র্যান্ড

ভালো মানের মেকআপ ব্যবহার করুন। দাম হয়তো একটু বেশি পড়বে। কিন্তু ত্বকের ক্ষতি এড়াতে ও মেকআপ দীর্ঘস্থায়ী করতে এতটুকু খরচ করাই যায়। সূত্র: ফেমিনা।

Share.

Leave A Reply