৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫|৮ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০|১৭ নভেম্বর, ২০১৮|শনিবার, বিকাল ৩:৩৮

শুভ জন্মদিন নাহিদ আশরাফ রাজীব

নিজস্ব প্রতিবেদক, দ্য ঢাকা রিপোর্ট ডটকম: টিভিপর্দার পরিচিত মুখ সংবাদকর্মী নাহিদ আশরাফ রাজীবের জন্মদিন ১১ নভেম্বর। শুভ জন্মদিন নাহিদ আশরাফ রাজীব। ১৯৮২ সালের এই দিনে তিনি ফরিদপুরের দাদাবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন। ফরিদপুর শহরের পশ্চিম আলীপুরের ওই বাড়িতেই কেটেছে তার শৈশব, কৈশোরের একটা বড় সময়।

দীপ্ত টিভির সিনিয়র ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট নাহিদ আশরাফ রাজীবের কর্মজীবন শুরু ২০০৭ সালের মার্চে। ওই বছর নাঈমুল ইসলাম খান সম্পাদিত নতুন ধারার দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকায় যোগদান করেন তিনি। এরপর সমকাল ও দেশ টিভি হয়ে সর্বশেষ যোগ দেন দীপ্ত টিভিতে।

এ. কিউ. এম. আশরাফুজ্জামান ও নার্গিস জামান দম্পতির দুই সন্তানের মধ্যে নাহিদ আশরাফ রাজীব বড়। বাবা ফরিদপুর জজ কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী। মা গৃহিনী। ছোট ভাই ওয়াহিদ আশরাফ রাহাত একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত।

ব্যক্তিগত জীবনে নাহিদ আশরাফ রাজীব দুই সন্তানের জনক। স্ত্রী নাঈমা জান্নাত সরকারি কর্মকর্তা। বড় ছেলে রিয়াসাত আশরাফ প্রথম শ্রেণিতে পড়ছে। ছোট মেয়ে মারইয়াম সানিয়াতের বয়স এক বছর দুই মাস।

রাজীবের শৈশব-কৈশোর কেটেছে ফরিদপুরে। সেখান থেকেই এসএসসি, এইচএসসি সম্পন্ন করেন। ফরিদপুর জিলা স্কুল থেকে এসএসসি পাসের পর ভর্তি হন ফরিদপুর সরকারি ইয়াসিন কলেজে। এরপর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) থেকে রাজনীতি বিজ্ঞানে অনার্স ও মাস্টার্স সম্পন্ন করেন।

নাহিদ আশরাফ রাজীব দ্য ঢাকা রিপোর্টকে জানান, তার প্রিয় রঙ নীল। প্রিয় খাবার গরুর মাংস। প্রিয় ফল আম। পছন্দের পোশাক টি-শার্ট। প্রিয় লেখক সমরেশ মজুমদার। প্রিয় ঋতু হেমন্ত।

মুভি দেখতে, গান শুনতে খুব পছন্দ করেন। সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডলে রয়েছে দীর্ঘ বিচরণ। চবিতে অধ্যয়নকালে তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় আবৃত্তি মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। রাজীবের পছন্দের অভিনেতা সালমান শাহ।

ঘুরে বেড়াতে ভালোবাসেন। দেশ-বিদেশের নানা জায়গায় ঘুরে বেড়াতে পছন্দ করলেও বেশি টানে সমুদ্র। সাগরের বিশালতা খুবই উপভোগ করেন।

বিভাগ:জন্মদিন
Share.

Leave A Reply